You are here: Home / শখের বাগান / বিলাতী মরিচঃ ক্যাপসিকাম

বিলাতী মরিচঃ ক্যাপসিকাম

আমাদের দেশের বহুল প্রচলিত এবং পরিচিত মিষ্টি মরিচের পোশাকি নাম হল ক্যাপসিকাম। কোথাও কোথাও এটি বেল পিপার নামেও পরিচিত। সালাদে এর ব্যাবহার, সালাদের স্বাদ এবং রং এ নতুন মাত্রা যোগ করে। তাই ক্যাপসিকামের জনপ্রিয়তাও দিনকে দিন বেড়েই চলেছে। কাঁচা এবং রান্না, দুইভাবেই খাওয়া যায় বলে এর ব্যাবহারিক দিকও প্রচুর। সালাদে টমেটোর পরই ক্যাপসিকামের অবস্থান, সবজি হিসাবেও এর অবস্থান উপরের দিকেই; শুধু স্বাদে নয় গুনেও ক্যাপসিকাম অনেক সমৃদ্ধ।

Bell Papers

লাল, হলুদ, বাদামি, পার্পল, সবুজ এমনকি কালো রঙেও ক্যাপসিকাম পাওয়া যায়। তবে আমাদের দেশে সবুজ ক্যাপসিকামটি বেশী পাওয়া যায়। কিন্তু আন্তর্জাতিক বাজারে হলুদ এবং লাল ক্যাপসিকামের চাহিদাই বেশী।

Green Capsikum

 

এই কিছুদিন আগে পর্যন্ত ক্যাপসিকাম আমাদের বিদেশ থেকে আমদানি করতে হত, কিন্তু আজকাল আমাদের দেশেই এর আবাদ হচ্ছে। দাম বেশী হওয়ায় ক্যাপসিকামের চাষাবাদ বেশ লাভজনক। এখনও পর্যন্ত আমরা বিদেশ থেকে বীজ আমদানী করে এর চাষ করছি, কিন্তু সুখের খবর হল এখন ক্যাপসিকামের বীজ দেশেই উৎপাদন করা সম্ভব হচ্ছে। পটিয়া, সাতকানিয়া, সীতাকুন্ড সহ আরও অনেক এলাকায় ক্যাপসিকামের বানিজ্যক চাষও শুরু হয়েছে।  বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইন্সটিটিঊট পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখেছে যে, আমাদের দেশের আবহাওয়া এই সবজী চাষের জন্য বেশ অনুকূল । এবং বাজারে ভালো দাম ও প্রচুর চাহিদা থাকায় কৃষকরাও এ সবজী চাষে বেশ অনুপ্রানিত । তাই তারা এখন এই সবজী চাষের দিকে ঝুকেছেন।

Red Capsikum

 

আগে শুধু বিদেশী অতিথিরা এই সবজিটি গ্রহণ করলেও বর্তমানে, চাইনিজ রেস্টুরেন্ট গুলতেও আমাদের দেশে উৎপাদিত ক্যাপসিকামের প্রচুর চাহিদা এবং দেশের বাইরেও এটি রপ্তানি হচ্ছে। দেশের সুপার স্টোর সহ অভিজাত সকল কাঁচা বাজারেই এর দেখা মিলবে। দাম বেশি বলে এটি সাধারনের ক্রয়সীমার বাইরে তবুও এটিকে ঘিরে মানুষের বেশ আগ্রহ আছে।

আমাদের দেশে সবুজ ক্যাপসিকামটিই সবচেয়ে বেশি দেখা যায় । তবে রঙিন ক্যাপসিকামটি খুব কম দেখা যায়, কারণ এটি চাষ করতে বেশ কিছু প্রযুক্তি প্রয়োজন।সাধারণত পৃথিবীর অন্যান্য দেশে হলুদ ক্যাপসিকাম এর চাহিদা সবচেয়ে বেশি তারপরই কমলা রঙের। শুধুমাত্র রঙের কারণে নয় আকার, ওজন, মিষ্টতা ভিটামিন  সমৃদ্ধতা এসব কারনেও দামের তারতম্য ঘটে।  লাল-হলুদ-কমলা-সাদা-বেগুনী এবং “কনি” ক্যাপসিকাম এই জাতগুলো আমাদের দেশের আবহাওয়ায় বেশ ভালো ফলন হয়।

বাজারে প্রতি পিস দেশী ক্যাপসিকাম এর সর্বনিন্ম মূল্য ৪০-৫০ টাকা

images (3)

বাজারে প্রতি পিস ক্যাপসিকাম এর সর্বনিন্ম দাম ৪০ টাকা । প্রতিটি গাছে ৩ থেকে ৪ কেজি ক্যাপসিকাম ফলন হয়। চাহিদা কিংবা বাজার মুল্য, চাষের ব্যাপক সমভাবনা এবং অনুকূল পরিবেশ এসব বিবেচনায় ক্যাপসিকাম চাষ কতটা লাভজনক হবে তা বলার অপেক্ষা রাখেনা।

 

Comments are closed.

Scroll To Top