You are here: Home / প্রযুক্তি প্রেমী / মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট ২০১৩ বেসিক

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট ২০১৩ বেসিক

মাইক্রোসফট অফিস সফটওয়্যার এর মধ্যে অন্যতম একটি প্রোগ্রাম হলো মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট , ইতিমধ্যে নিত্য নতুন ফিচার নিয়ে এর ২০১৩ ভার্সন বের করেছে মাইক্রোসফট কর্পোরেশন। মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট ২০১৩ তে বিভিন্ন টুলসকে আর সহজেই ব্যবহার করাসহ নতুন থিমস রয়েছে, এতে আরো রয়েছে ভিডিও ড্রাগ এন্ড ড্রপ অপশন যাতে সহজেই আপনি আপনার প্রেজেন্টেশনে যে কোন ভিডিও সংযোজন করতে পারেন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

আজকে আমরা দেখবো মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট ২০১৩ এর বেসিক কিছু বিষয়। নিত্য নতুন সব ফিচার আর সুবিধা পেতে আপনাকে মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট ২০১৩ ইনস্টল করে নিতে হবে। এরপর পাওয়ার পয়েন্ট ওপেন করে আপনি কাজ শুরু করে দিতে পারেন।

থিম সিলেকশনঃ

পাওয়ার পয়েন্ট ওপেন করলে আপনি প্রথমে দেখতে পাবেন থিম সিলেক্ট করার অপশন। ডিফল্ট অনেকগুলো থিমের মধ্যে আপনার পছন্দের যে কোন একটি থিম সিলেক্ট করে নিন। সিলেক্ট করার পর কালার পছন্দ করে নিন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

ডিফল্ট থিম ছাড়াও আপনি অনলাইন থেকে ক্যাটাগরি অনুযায়ী থিম নিয়ে কাজ করতে পারেন। ডিফল্ট থিম গুলোর উপরের দিকেই এই অপশন আছে।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

নতুন স্লাইড নেয়াঃ

Home বাটন এ গিয়ে new slide অপশন এ ক্লিক করে স্লাইড লে-আউট পছন্দ করে নিন। এখানে ছবি, বিডিও কিংবা টেক্সট নিয়ে কাজ করার অনেকগুলো লে-আউট আছে। দেখানোর সুবিধার্থে আমি একটি blank layout নিয়েছি।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

কোন কিছু লিখতে চাইলেঃ

উপরের insert বাটন এ ক্লিক করে text box এ ক্লিক করুন। এরপর আপনি যে কোন লিখা এই বক্সে লিখতে পারেন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

টেক্সট ফরমেট করাঃ

১। টেক্সট সিলেক্ট করে নিন। drawing tool এর নিচে format অপশন এ ক্লিক করুন।

২। টেক্সট এর কালার পরিবর্তন করতে চাইলে ক্লিক text fill, টেক্সট এর আউটলাইন কালার পরিবর্তন করতে text outline এ ক্লিক করুন।

৩। shadow, reflection, rotation ইত্যাদি ইফেক্ট দিতে চাইলে text effects এ ক্লিক করে ইফেক্ট পছন্দ করুন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

শেপ যোগ করাঃ 

বিভিন্ন ধরনের শেপ যেমন ত্রিভুজ, চতুর্ভুজ, বৃত্ত ইত্যাদি আঁকতে চাইলে insert এ গিয়ে shapes এ ক্লিক করুন আর পছন্দ অনুযায়ী শেপ সিলেক্ট করুন। এক্ষেত্রে আপনি যদি স্কয়ার শেপ অর্থাৎ সমান প্রস্থ ও উচ্চতা বজায় রেখে শেপ আঁকতে চান তাহলে অবশ্যই shift চেপে ধরে শেপ আঁকতে হবে।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

ছবি যোগ করাঃ

১। আপনার হার্ড ড্রাইভে সেভ করা কোন ছবি যোগ করতে প্রথমে insert অপশনে যেতে হবে।

২। এরপর pictures এ ক্লিক করে আপনার ছবি সিলেক্ট করে insert এ ক্লিক করুন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

স্পীকার নোটঃ

স্লাইডে অনেক বেশি ইনফরমেশন দিয়ে ফেলেছেন না এমন কিছু যা আপনি স্লাইডে দিতে চাচ্ছেননা কিন্তু এটা মনে রাখা জরুরি সেক্ষেত্রে নোট দিয়ে রাখতে পারেন।

১। স্লাইডের নিচের টুলবারে notes অপশনে ক্লিক করুন।

২। এরপর খুলে যাওয়া notes pane এ আপনার ইনফরমেশন লিখে নিন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

স্পীকার নোট প্রিন্ট করবেন যেভাবেঃ

১। file অপশন এ গিয়ে print  এ ক্লিক করুন।

২। printer অপশনে গিয়ে যে প্রিন্টারে প্রিন্ট দিতে চান তা সিলেক্ট করুন।

৩। settings এর নিচে full page slides অপশনে ক্লিক করুন।

৪। print layout এ notes pages এ ক্লিক করুন। এরপর print এ ক্লিক করুন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

প্রেজেন্টেশন শুরু করাঃ

১। যদি প্রথম স্লাইড থেকে প্রেজেন্টেশন শুরু করতে চান তাহলে slide show অপশনে গিয়ে from beginning

২। যদি আপনি যেই স্লাইড এ আছেন এই মুহুর্তে সেই স্লাইড থেকে শুরু করতে চান তাহলে from current slide

৩। যদি অনলাইনে প্রেজেন্টেশন দিতে চান তাহলে present online এ ক্লিক করুন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

প্রেজেন্টেশন সেভ করাঃ

১। file এ গিয়ে save বাটন এ ক্লিক করুন।

২। আপনি যেখানে সেভ করতে চান ফাইল সিলেক্ট করুন।

৩। file name এ নাম পরিবর্তন করে save এ ক্লিক করুন।

মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট

আশা করি এবার আপনি মাইক্রোসফট পাওয়ার পয়েন্ট ২০১৩ ব্যবহার করে কীভাবে প্রেজেন্টেশন তৈরি করে স্লাইড শো দিতে পারবেন। পরবর্তীতে আপনার সুবিদার্থে পাওয়ার পয়েন্ট এর চমৎকার কিছু আর্টিকেল নিয়ে হাজির হবো।

Leave a Reply

Scroll To Top