You are here: Home / প্রযুক্তি প্রেমী / মাছি মেরেই আয় ৫৩ কোটি টাকা

মাছি মেরেই আয় ৫৩ কোটি টাকা

কোটি টাকা

মাছি মেরে ৫৩ কোটি টাকা আয়!!

জী না, আমি রঙিন পানীয় পান করিনি এবং আমার পাবনার টিকিট কাটার দরকার আছে এমনটা ইদানিং কালে কেউ বলেন নাই। আমি ১০০% সুস্থ্য এবং স্বাভাবিক আছি।

অবিশ্বাস্য মনে হলেও আদতে এটি একটি সত্যি ঘটনা যা সাম্প্রতিক সময়ে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। শিরোনামটি যে আপনাকে চমকে দিয়েছে, তা আমি একপ্রকার নিশ্চিত। কথা না বাড়িয়ে চলুন আসল গল্পে—

মাছি মেরে বাৎসরিক ৫৩ কোটি টাকা আয় করে রীতিমতো হইচই ফেলে দিয়েছেন ফেলিক্স জেলবার্গ নামের একজন ইউটিউবার (যারা ইউটিউবে ভিডিও তৈরি করার কাজকে পেশা হিসাবে নিয়েছেন তাদেরকেই মুলত ইউটিউবার বলা হয়)। সম্প্রতি সুইডিশ একটি অনলাইন দৈনিকের প্রতিবেদন থেকে জানা যায় ফেলিক্স জেলবার্গ একজন সুইডিশ নাগরিক, এই বিপুল পরিমাণ অর্থ ইউটিউব থেকে আয় করছেন।

এই প্রতিবেদনটি প্রকাশের পর থেকেই সাইবার ওয়ার্ল্ডে চলছে তুমুল আলোচনা ও সমালোচনা। কেউবা অভিনন্দন আর শুভেছায় ভাসিয়ে দিচ্ছেন ফেলিক্সকে, আবার কেউ কেউ ঈর্ষান্বিত হয়ে তাঁর তুমুল সমালোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন সমানে। ঘটনাটিকে আবার অনেকেই দেখছেন সোনালি ভবিষ্যতের নতুন এক মাইলফলক হিসাবে। সুইডেনের একজন হটডগ সেলসম্যান যদি এমন অস্বাভাবিক আয় করতে পারেন তাহলে যে কেউই এমন আয় করতে সমর্থ হবেন, এমনটাই অনেকে আশা করছেন।

নিশ্চয়ই জানতে ইচ্ছে করছে!

মাছি মেরে কিভাবে এত বিপুল অংকের আয় করছেন ফেলিক্স?

প্রথমেই জানিয়ে দিই, মাছি মারা শব্দটি এখানে আসলে আমি রুপক অর্থে ব্যবহার করেছি। তবে এটিও সত্যি, প্রকৃত ঘটনাটি জানার পর, আপনারাও আমার সাথে একমত হবেন, ফেলিক্সের কাজ মাছি মারার চাইতে তেমন কঠিন কিছু না।

আপনার অনুভূতি অনুমান করেই বলছি, জী, আপনি ঠিকই ভাবছেন- মাছি মারতে পারলে আপনিও পারবেন বাৎসরিক ৫০+ কোটি টাকা আয় করতে। তবে চলুন, আগে জেনে নিই ফেলিক্সের সাফল্যের পিছনের গল্পটি।

আজ থেকে পাঁচ বছর আগে, ফেলিক্স একটি ইউটিউব চ্যানেল খোলেন। সেই ইউটিউব চ্যানেলই আজ তাকে বাৎসরিক প্রায় ৫৩ কোটি টাকা (৭ মিলিয়ন ইউ এস ডলার) আয় দিচ্ছে।

ফেলিক্সের ইউটিউব চ্যানেলটি সাধারনত গেম, মানে কম্পিউটার গেম খেলার উপর তৈরি করা। সেখানে ফেলিক্স দুই অথবা তিনটি গেম খেলেন আর ক্রিকেটের ধারা ভাষ্যকরদের মতো রানিং কমেন্ট্রি দেন। এই খেলার দৃশ্য রেকর্ড করে ইউটিউব চ্যানেলটিতে আপলোড করে দেন। ব্যাস, এতেই ফেলিক্স আয় করছেন বাৎসরিক প্রায় অর্ধশতাধিক কোটি টাকা। বিশ্বাস করতে কষ্ট হয়, তাইনা? কষ্ট হলেও ঘটনা কিন্তু ১০০% সত্য, বিশ্বের নামী দামি নিউজ সাইটগুলোতে এই প্রতিবেদন প্রকাশিত হওয়া কিন্তু কাকতালীয় কিছু না।

মাছি মারাও মনে হয় এর চাইতে অনেক কঠিন একটি কাজ, তাইনা?!

ফেলিক্সের ইউটিউব চ্যানেলটি ঘুরে আসতে পারেন, নিচের লিঙ্ক থেকে। আমার দৃঢ় বিশ্বাস আপনিও আমার সাথে একমত হবেন, এর চাইতে মাছি মারা অনেক কঠিন কাজ।

>>ইউটিউব খুলে দিয়েছে আয়ের নতুন পথঃ ইউটিউব ভিডিও কন্টেন্ট-এর একটি অবারিত দ্বার খুলে দিয়েছে। অনেকই আজকাল ইউটিউবের মাধ্যমে বিপুল আয় করছেন। ইউটিউব থেকে বেশ সম্মানজনক আয় যারা করছেন তাদের মধ্যে ছাত্র, ছাত্রী, গৃহিণী, তরুন, তরুণী, ডাক্তার, ইঞ্জিনিয়ার, শিক্ষক সকল পেশার মানুষেরাই আছেন।

>>আপনিও করতে পারেনঃ সবাই যদি আয় করতে পারেন, তাহলে প্রশ্ন জাগাটাই স্বাভাবিক, আপনিও কি পারবেন?!

উত্তরঃ হ্যা, অবশ্যই পারবেন।

 

ইউটিউব থেকে আয় কিভাবে হয়?

সবচাইতে সরল উত্তর হোল, ইউটিউবে ভিডিওগুলিতে থাকা বিজ্ঞাপন থেকে। এই পদ্ধতির নাম হলো, ইউটিউব এডসেন্স। এটি গুগলের একটি বিজ্ঞাপন সেবা যা কিনা আমার আপনার মতো সাধারন মানুষকে আয়ের একটি নতুন পথ দেখিয়েছে।

কিভাবে শুরু করবেন?

ইউটিউব থেকে আয় করতে হলে প্রথমেই আপনার দরকার একটি ইউটিউব চ্যানেল। ঘাবড়াবেন না, ইউটিউব চ্যানেল খুলতে টাকা পয়সা কিছু লাগে না। গুগলের অন্যান্য সেবার মতো এটিও ফ্রি। কিন্তু সঠিক ভাবে চ্যানেল না খুললে সে চ্যানেল থেকে আয় করা যায় না। তাই চ্যানেল খোলার আগে ভালো ভাবে জেনে নিন কিভাবে সঠিক উপায়ে চ্যানেল খুলতে হয়।

ইউটিউব থেকে আয় করতে চাইলে আপনার যে জিনিসটা সবচাইতে বেশী জরুরী তা হলো, জ্ঞ্যান। আপনার থাকতে হবে ইউটিউব সম্বন্ধে সম্যক ধারণা। ইউটিউবের খুঁটিনাটি সবকিছু আপনার নখদর্পণে থাকলেই আপনি পেতে পারেন আপনার কাঙ্ক্ষিত সাফল্য।

এছাড়াও আপনার দরকার হবে কিছু যন্ত্রপাতি এবং কিছু সফটওয়্যার যা আপনার কাজে সাহায্য করবে।

সুখবরটা হল, যন্ত্রপাতি যা দরকার তার বেশিরভাগ আপনার কাছেই আছে। বাকি থাকলো নলেজ, আর শুরু করাটা। শুরু করে দিন, অবহেলায় সুযোগ নষ্ট করবেন না, মনে রাখবেন-সময় চলে গেলে তা কিন্তু আর ফেরানো যায় না।

কিছু জানার থাকলে বা জিজ্ঞাসা থাকলে কমেন্ট করুন। আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করবো আপনাদের প্রশ্নের উত্তর দিতে।

সংবিধিবদ্ধ সতর্কিকরনঃ ইহা রাতারাতি বড়লোক হইবার আসান তরীকা নয়। এতে বিশাল খাটুনি (যদি মাছি মারা আপনার কাছে খাটুনি হয় তাহলে আরকি) এবং ধৈর্য ধারন করিবার বিশেষ প্রয়োজনীয়তা আছে।

ভালো থাকবেন, সৌখিনের সাথেই থাকবেন। ধন্যবাদ।

Felix Kjellberg

Youtube Channel Link:

https://www.youtube.com/channel/UC-lHJZR3Gqxm24_Vd_AJ5Yw

Source:

http://techcrunch.com/2015/07/08/youtuber-pewdiepie-responds-haters-after-they-discover-he-made-7-million-last-year/

Leave a Reply

Scroll To Top